বগুড়ায় চাঁদাবাজি বন্ধে পুলিশের উদ্যোগ

বগুড়ার নতুন বাড়িঘর নির্মাণের সময় চাঁদাবাজদের কাছে আর কাউকে জিম্মি থাকতে হবে না। চাঁদা চেয়ে কেউ হম্বিতম্বি করলে সহযোগিতা করবে পুলিশ। এমন ঘোষণা দিয়ে জেলাজুড়ে সচেতনতামূলক প্রচার চালানো হচ্ছে। চাঁদা বন্ধে সর্বোচ্চ সহযোগিতার ঘোষণা দিলেন পুলিশ সুপার আলী আশরাফ ভুঁইয়া। এ উদ্যোগকে সাধুবাদ জানিয়েছেন সাধারণ মানুষ।

এমন ঘোষনা দিয়ে জেলাজুড়ে সচেতনতা সৃষ্টির পাশাপাশি ব্যানার টাঙ্গিয়ে দিয়েছে পুলিশ। ওয়ার্ডে ওয়ার্ডে চলছে সচেতনতামূলক সভা।

বগুড়া শহরে বাড়ি
নির্মাণ করবে চাঁদা না দিয়ে এমন কল্পনা করাও ছিল কঠিন। চাঁদাবাজদের দৌরাত্মে
অতিষ্ঠ হয়ে উঠেছিল সাধারণ মানুষ। বাড়ি নির্মাণ শুরু করলেই হানা দিতো
চাঁদাবাজরা। তাদের কাছ থেকে ইট সিমেন্ট রড বালু কিনতে বাধ্য করা হতো বাড়ির
মালিকদের। অবশেষে চাঁদাবাজদের দৌরাত্ম বন্ধে কঠোর পদক্ষেপ নিয়েছে পুলিশ।
ইতিমধ্যে সুফল পেতে শুরু করেছে জনগণ। 

পুলিশী সহযোগিতার অংশ
হিসেবে নির্মাণাধীন বাড়ির সামনে সংশ্লিষ্ট এলাকার পুলিশ কর্মকর্তাদের নম্বরসহ
বিজ্ঞপ্তি টাঙিয়ে দেয়া হচ্ছে। পাশাপাশি বাড়ির নির্মাণকাজ পর্যবেক্ষণও করা হচ্ছে। কেউ চাঁদা দাবি করলেই
ছুটে আসবে পুলিশ।

বগুড়া জেলা পুলিশের এমন
উদ্যোগে খুশি সুশীল সমাজের মানুষও। বললেন এটি হতে পারে সারাদেশের জন্য মডেল।

চাঁদা বন্ধে প্রশাসনের
পক্ষ থেকে সাধারণ মানুষকে সর্বোচ্চ সহযোগিতার ঘোষণা দিলেন পুলিশ সুপার আলী আশরাফ
ভুঁইয়া।

নিজের জায়গায় নিজের
বাড়ি নিজের ইচ্ছায় করবো- বগুড়ার
মতো পুলিশের এমন উদ্যোগ ছড়িয়ে পড়ুক সারাদেশে এমন আশা সচেতন মহলের।

Recommend to friends
  • gplus
  • pinterest

About the Author