মিয়ানমারে হত্যা বন্ধে কঠোর পদক্ষেপ নেয়ার আহ্বান ট্রাম্পের

মিয়ানমারে চলমান দমন-পীড়ন বন্ধে নিরাপত্তা পরিষদকে দ্রুত ও কঠোর পদক্ষেপ নেয়ার আহ্বান জানিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। বুধবার জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদে দেয়া বক্তব্যে এ কথা জানান যুক্তরাষ্ট্রের ভাইস প্রেসিডেন্ট মাইক পেন্স। এদিকে, মিয়ানমারের রাখাইনে পরিস্থিতির উন্নতি হয়েছে বলে দাবি করেছেন দেশটির ভাইস প্রেসিডেন্ট হেনরি ভ্যান থিও। জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদে দেয়া ভাষণে তিনি এ দাবি করেন।

মিয়ানমারে চলমান নির্যাতন এখনই বন্ধ না হলে পুরো অঞ্চলের জন্যই তা হুমকি হয়ে দাঁড়াবে। তাই অবিলম্বে সহিংসতা বন্ধের আহ্বান জানিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। জাতিসংঘের শান্তিরক্ষী বাহিনীর সংস্কারমূলক এক বৈঠকে ট্রাম্পের বক্তব্য তুলে ধরেন মার্কিন ভাইস প্রেসিডেন্ট মাইক পেন্স।

তিনি বলেন, রোহিঙ্গাদের ওপর অবর্ণনীয় নির্যাতন চলছে, তাদের গ্রামগুলো জ্বালিয়ে দেয়া হচ্ছে। এসব বন্ধ করে কূটনৈতিক ও দীর্ঘমেয়াদী সমাধান করতে মিয়ানমার সরকারের প্রতি আহ্বান জানাচ্ছি।

এদিকে, সু চির সুর ধরেই জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদে ভাষণ দিলেন মিয়ানমারের ভাইস প্রেসিডেন্ট হেনরি ভ্যান থিও। ভাষণে রাখাইনের পরিস্থিতির উন্নতি হয়েছে বলে দাবি করেন তিনি। বলেন, রাখাইনে গত ৫ সেপ্টেম্বরের পর কোন সহিংসতা হয়নি। আমি আনন্দের সঙ্গে জানাচ্ছি পরিস্থিতি এখন শান্ত। মুসলমানরা কেনো বাংলাতেদশে পালিয়ে যাচ্ছে তা আমরা জানিনা।

সন্ত্রাসী হামলার পরই রাখাইনে সেনা অভিযান শুরু হয়েছে, যার প্রভাব মুসলমানদের ওপর পড়েছে বলেও মন্তব্য করেন মিয়ানমারের ভাইস প্রেসিডেন্ট।

 

 

Recommend to friends
  • gplus
  • pinterest

About the Author

Leave a comment