৭৩ হাজার কোটি টাকার সহায়তা প্যাকেজ ঘোষণা

করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাবে সৃষ্ট আর্থিক ক্ষতি মোকাবেলায় ৭২ হাজার ৭৫০ কোটি টাকার আর্থিক সহায়তা প্যাকেজ ঘোষণা করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সকালে গণভবনে এক সংবাদ সম্মেলনে এ ঘোষণা দেন তিনি। এছাড়া বিনামূল্যে খাদ্য বিতরণ, সামাজিক সুরক্ষার আওতা বৃদ্ধির কথাও জানান প্রধানমন্ত্রী। সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিতে ঘরে বসেই নববর্ষ ও পবিত্র শবে বরাত পালনের আহ্বান জানান সরকার প্রধান।

বৈশ্বিক করোনা পরিস্থিতিতে সবচেয়ে বেশী ক্ষতির মুখে পড়বে আর্থিকখাত। এতে দেখা দেবে বড় ধরনের বিশ্বমন্দা। এমন বাস্তবতায় দেশের আর্থিকখাতে বিরূপ প্রভাব মোকাবেলায় সরকারের পরিকল্পনা তুলে ধরলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেন, সরকার সময় মতো পদক্ষেপ নেয়ায় দেশে করোনা সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে রাখা সম্ভব হয়েছে। চলমান সংকট উত্তরণে সরকারি ব্যয়ে বিদেশভ্রমণ নিরুৎসাহিত, সামাজিক সুরক্ষার আওতা বৃদ্ধিসহ চারটি পদক্ষেপও তুলে ধরেন প্রধানমন্ত্রী।

দেশীয় শিল্পের উৎপাদন অব্যাহত রাখার পাশাপাশি
শ্রমিকদের বেতনভাতা নিশ্চিতে বৃহৎ, ক্ষুদ্র, মাঝারী ও রপ্তানীমূখী শিল্পের জন্য
আলাদা প্যাকেজ ঘোষণা করেন সরকার প্রধান। যেখানে সাড়ে চার শতাংশ সুদে বৃহৎ শিল্পের
জন্য ৩০ হাজার কোটি, চার শতাংশে সুদে ক্ষুদ্র ও মাঝারী শিল্পের জন্য ২০ হাজার কোটি
ঋণের ব্যবস্থা রাখা হয়েছে। রপ্তানীর ক্ষেত্রে এলসি সুদের হার ২ দশমিক ৭৩ থেকে
কমিয়ে ২ শতাংশে আনার কথাও বলেন তিনি।

ঘরে বসেই নববর্ষ ও শবেবরাত পালনের আহ্বান জানিয়ে, ঘোষিত
প্রণোদনায় কেউ যাতে অবৈধা ফায়দা লুটতে না পারে, সে ব্যাপারে সংশ্লিষ্টদের সতর্ক
করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

Recommend to friends
  • gplus
  • pinterest

About the Author