কিশোরগঞ্জ হাওরে পাকা সড়ক

কিশোরগঞ্জের হাওরে যোগাযোগের ক্ষেত্রে ‘শুকনায় পাও আর বর্ষায় নাও’ প্রবাদটি যেনো মিথ্যে হতে চলেছে। এক সময়ের দুর্গম এলাকা ইটনা মিঠামইন ও অষ্টগ্রামে জ্বলছে আলো। পাল্টেছে যোগাযোগ ব্যবস্থাও। তিন উপজেলাকে যুক্ত করে নির্মাণ করা হয়েছে সারাবছর চলাচল উপযোগী পাকা সড়ক।

ফেরি উদ্বোধনের মধ্য দিয়ে শুরু হলো কিশোরগঞ্জের তিন হাওর উপজেলা ইটনা- মিঠামইন ও অষ্টগ্রামে নবনির্মিত সারাবছর চলাচল উপযোগী সড়কে যানবাহন চলাচল। দীর্ঘদিন পর হাওরবাসীর স্বপ্ন বাস্তবায়ন হওয়ায় আনন্দে উদ্বেলিত এলাকাবাসী। করিমগঞ্জের বালিখোলা ও চামড়াবন্দর এলাকায় ফেরি চলাচল উদ্বোধন করেন কিশোরগঞ্জ-৩ আসনের এমপি মুজিবুল হক চুন্নু ও কিশোরগঞ্জ-৪ আসনের এমপি রেজওয়ান আহাম্মদ তৌফিক।

এটি হাওরের জন্য বিষ্ময়কর সাফল্য মন্তব্য করেন এলাকাবাসী। সংসদ সদস্য মুজিবুল হক চুন্নু বলেন,

হাওর এক সময় চরম অবহেলিত থাকলেও এখন বাস্তবতা ভিন্ন। সংসদ সদস্য রেজওয়ান আহাম্মদ তৌফিক বলেন, হাওরে বর্ষায় নাও আর শুকনায় পাও’ এখন অতীত। এক হাজার দু’শ ৬৮ কোটি টাকা ব্যয়ে ২২টি পাকা সেতু,১০৪টি কালভার্টসহ জেলা সদরের সঙ্গে যোগাযোগ রক্ষায় বিভিন্ন নদীতে ৫টি ফেরি চালু করা হয়েছে। সময়ের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে হাওরবাসীর সব স্বপ্নই পূরণ হবে-এমন প্রত্যাশা সবার।

Recommend to friends
  • gplus
  • pinterest

About the Author