করোনা ভাইরাসে মৃত্যের সংখ্যা ১৩৫৫

চীনে ভয়াবহ রূপ নিয়েছে করোনা ভাইরাস বা কভিড-১৯। ভাইরাসটিতে আক্রান্ত হয়ে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১হাজার ৩৫৫ জনে। একদিনেই মারা গেছে ২৪১জন। এছাড়া আক্রান্তের সংখ্যা ৬০ হাজার ছাড়িয়েছে। এদিকে জাপানের প্রমোদতরীতে কোয়ারান্টাইনে থাকা আরও ১৭৪ জন করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে। পাশাপাশি যুক্তরাজ্য ও সিঙ্গাপুরসহ বেশ কয়েকটি দেশেও কভিডে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়েছে। সংক্রমণ এড়াতে বিশ্বের বিভিন্ন দেশ নেয়া হয়েছে সতর্কতামূলক ব্যবস্থা।

একদিন আগে চীনের হুবেই প্রদেশে
সংক্রমণ পরিস্থিতিতে কিছুটা স্থিতিশীলতা
লক্ষ্য করা গেলেও ২৪
ঘন্টায় তা ভয়াবহ রূপ নিয়েছে। আগের সব রেকর্ড ভেঙ্গে মৃত্যু ও আক্রান্তের সংখ্যা বেড়েছে
অবিশ্বাস্য গতিতে। এর জেরে চাকুরিচ্যুত হয়েছেন হুবেই প্রদেশের কমিউনিষ্ট পার্টি
প্রধানসহ বেশ কয়েকজন উর্ধ্বতন কর্মকর্তা।

বিশ্বের অন্তত ২৫টি দেশে কভিড-১৯ ছড়িয়ে পড়েছে
বলে জানা গেছে। এর মধ্যে নতুন করে যুক্তরাজ্যে একজন আক্রান্ত হয়েছে। এ নিয়ে
দেশটিতে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়ালো ৯ জনে।  এছাড়া সিঙ্গাপুর, জাপানেও বেড়েছে এর সংখ্যা। কবে
নাগাদ এ ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব কমবে সে সম্পর্কে এখনই কিছু বলা যাচ্ছে না বলে
জানিয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা।

এদিকে, গত ১০ দিন ধরে জাপান উপকূলে একটি প্রমোদতরীতে কোয়ারান্টাইনে থাকা ৩ হাজার ৭০০ জন কার্যত বন্দী জীবন যাপন করছেন। ইতোমধ্যেই কভিডে আক্রান্ত হয়েছে শতাধিক। জাহাজ থেকে নামার সুযোগ পায়নি কোনও যাত্রীই।  আগামী ১৯ ফেব্রুয়ারির আগে তাদের সেখান থেকে মুক্তি পাওয়ার কোনও সম্ভাবনা নেই বলে জানিয়েছে কর্তৃপক্ষ।

এছাড়া সংক্রমণ এড়াতে বিদেশী সব পর্যটকদের ওপর
কোয়ারান্টাইন আরোপ করেছে উত্তর কোরিয়া। চীন থেকে আসা ব্যক্তিদের প্রবেশ নিষিদ্ধ
করেছে জাপান। আর এপ্রিলের শেষ দিক পর্যন্ত সব  চীনা ফ্লাইট বন্ধ ঘোষণা করেছে মার্কিন
যুক্তরাষ্ট্র।

Recommend to friends
  • gplus
  • pinterest

About the Author