কেরানীগঞ্জে প্লাস্টিক কারখানার আগুনে একজনের মৃত্যু

ঢাকার কেরানীগঞ্জে একটি প্লাস্টিক
কারখানায় আগুনে এক শ্রমিক নিহত হয়েছেন। দগ্ধ হয়েছেন আরো অন্তত ৩৪ জন।
তাদের সবার অবস্থা সঙ্কটাপন্ন বলে জানিয়েছেন ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের বার্ন
ইউনিটের সমন্বয়ক ডাক্তার সামন্ত লাল সেন। 
বিকেলে কেরানীগঞ্জের চুনকোটিয়া এলাকায় প্রাইম পেট অ্যান্ড প্লাস্টিক ইন্ডাস্ট্রিজে
এ দুর্ঘটনা ঘটে। ফায়ার
সার্ভিসের ১০টি ইউনিপের প্রায় দুই ঘন্টার চেষ্টায় সন্ধ্যার পর আগুন নিয়ন্ত্রণে আসে।

বিকেল সোয়া ৪টার দিকে ঢাকার দক্ষিণ কেরানীগঞ্জের
চুনকোটিয়া এলাকায় প্রাইম পেট অ্যান্ড প্লাস্টিক ইন্ডাস্ট্রিজে অগ্নিকান্ডের
সুত্রপাত। খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের ১২টি ইউনিটের প্রায় দুই ঘন্টার
চেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আসে। ততক্ষণে মারা যান এক শ্রমিক। দগ্ধ
হন আরো ৩৪ জন। স্থানীয়রা বলেন এ ধরনের কারখানায় বেশ কয়েকটি দরজা
থাকা প্রয়োজন। তবে কারখানাটিতে ছিল মাত্র একটি।

ফায়ার সার্ভিসের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল সাজ্জাদ হোসেন বলেন, কর্তৃপক্ষের গাফিলতির কারণে ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ বেশি হয়েছে। এ ঘটনায় তিন সদস্যের তদন্ত কমিটি করা হয়েছে।

অগ্নিকাণ্ডে দগ্ধদের ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইউনিটে
ভর্তি করা হয়। তাদের সবার অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে জানিয়েছেন চিকিৎসকরা।

ঢাকা মেডিকেলে রোগীদের দেখতে গিয়ে
বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বলেন, ওই কারখানার কোনো
অনুমোদন ছিল না। বিষয়টি তদন্ত করা হচ্ছে। আগুন লাগার সময় ৫০
থেকে ৬০ জন কর্মরত ছিলেন বলে জানিয়েছে কারখানার নিরাপত্তা বিভাগ।

Recommend to friends
  • gplus
  • pinterest

About the Author