১ দিনে দুধ উৎপাদন আড়াই লাখ টন

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় দিনদিনই বাড়ছে দুগ্ধ খামারের সংখ্যা। প্রতিদিন জেলায় উৎপাদিত হচ্ছে প্রায় আড়াই লাখ টন দুধ। এতে দুধ উৎপাদনে স্বয়ংসম্পূর্ণতা অর্জনের পাশাপাশি সৃষ্টি হয়েছে কর্মস্থানের নতুন ক্ষেত্র। নতুন খামার স্থাপনের জন্য দুধ বিপননে সরকারিভাবে উদ্যোগ নেয়ার দাবি জানালেন খামারীরা।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর উপজেলার চিনাইর গ্রামের আদর্শ খামারী মোতাহার। কৃষি কাজের পাশাপাশি  ২০০৫ সালে ত্রিশ শতাংশ জমিতে ৫টি গরু দিয়ে শুরু করেন খামার। বর্তমানে তার খামারে গাভির সংখ্যা ১৫০টি। খামারে কর্মসংস্থান হয়েছে ২০ জনের। তিনি প্রতি মাসে খামার থেকে উৎপাদিত দুধ বিক্রী করছেন ৮ লাখ টাকা।  খামারের খরচ মিটিয়ে মাসে লাভ থাকছে দেড় থেকে দুই লাখ টাকা। তার সফলতায় গ্রামে আরও পাঁচটি খামার গড়ে উঠে। এসব খামারে প্রতিদিন উৎপাদিত হচ্ছে প্রায় আড়াই লাখ টন দুধ।

দুধ বিপননে সরকারী ভাবে উদ্যোগ নেয়া হলে আরও লাভবান হওয়ার প্রত্যাশা খামারীদের। খামারের প্রয়োজনী খরচ শেষে লাভবান হবার কথা জানালেন এ খামারী। এ পেশায় আসতে আগ্রহীদেরও শুনালেন ঘুরে দাঁড়ানোর কথা।

খামারীদের উৎসাহি করতে ডেইরী এসোসিয়েশন গঠনের কথা জানান জেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা তাপস কান্তি দত্ত। ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলায় ১ হাজার ৬৮১টি ডেইরী ফার্ম রয়েছে। সহজ শর্তে ঋণ সুবিধা ও লাভজনক হওয়ায় বাড়ছে নতুন উদ্যোক্তার সংখ্যা।

Recommend to friends
  • gplus
  • pinterest

About the Author