প্রতি ১ মিনিটে দৃষ্টি হারাচ্ছে ১২ জন

বাংলাদেশে প্রায় পৌনে এক কোটি মানুষ দৃষ্টিহীনতার শিকার। এর মধ্যে শিশুর সংখ্যা প্রায় ৫০ হাজার। চিকিৎসকরা বলছেন, ছানিপড়া, পুষ্টিহীনতা ও বার্ধক্যজনিত কারণে বাড়ছে দৃষ্টি প্রতিবন্ধীর সংখ্যা। একটু সচেতন হলেই চিকিৎসার মাধ্যমে বেশিরভাগ অন্ধত্ব দূর করা সম্ভব বলেও জানান তারা। বর্তমানে বিশ্বে তিন কোটি ৬০ লাখ মানুষ দৃষ্টিহীন। পরিস্থিতি উন্নতি না হলে ২০৫০ সালের মধ্যে এ সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াবে সাড়ে ১১ কোটি।

উন্নয়নশীল দেশগুলোতে প্রতি
মিনিটে এক শিশুসহ ১২ জন মানুষ দৃষ্টি হারাচ্ছেন। তথ্যমতে, বাংলাদেশে
দৃষ্টি প্রতিবন্ধী মানুষের সংখ্যা ৭৫ লাখের বেশি। এর মধ্যে ৮০ শতাংশই দৃষ্টি
হারাচ্ছেন ছানিজনিত কারণে। পুষ্টিহীনতা ও বার্ধক্যজনিত কারণ তো আছেই। চিকিৎসকরা বলছেন, সময়মতো
চিকিৎসা হলে ৮০ ভাগ অন্ধত্ব দূর করা সম্ভব।দৃষ্টি প্রতিবন্ধীদের অভিশাপ বা বোঝা না ভাবতে সবার প্রতি অনুরোধ জানালেন জাতীয় প্রতিবন্ধী
উন্নয়ন ফাউণ্ডেশনের এ কর্মকর্তা।

জন্মান্ধ শিশু আর ভাল হবে না, অনেক অভিভাবকের এমন ভ্রান্ত ধারণা আছে। এ প্রসঙ্গে ডাক্তারদের মত ভিন্ন। তারা বলছেন, সময়মত চিকিৎসা করালে তাদের সারিয়ে তোলা সম্ভব। দৃষ্টি প্রতিবন্ধীদের বিকল্প চোখ হিসেবে কাজ করে সাদাছড়ি। তাই বিশ্ব সাদা ছড়ি নিরাপত্তা দিবসকে গুরুত্বের সঙ্গে নিতে সবাইকে পরামর্শ দিয়েছেন চিকিৎসকরা।

Recommend to friends
  • gplus
  • pinterest

About the Author