তেল শোধনাগারে ড্রোন হামলার জেরে সৌদি আরবে সেনা পাঠানোর ঘোষণা দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। শুক্রবার এক সংবাদ সম্মেলনে এ সিদ্ধান্তের কথা জানান মার্কিন প্রতিরক্ষামন্ত্রী মার্ক এসপার। প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের অনুমোদনের পরই সেখানে সেনা পাঠানো হচ্ছে বলে জানান তিনি। তবে কতজন সেনা সদস্য পাঠানো হবে তা নিশ্চিত করেননি মার্কিন প্রতিরক্ষামন্ত্রী। সৌদি আরবের আকাশপথের নিরাপত্তায় রিয়াদের অনুরোধে সেনা পাঠানোর সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

একইসঙ্গে সংযুক্ত আরব আমিরাতেও সেনা পাঠনোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে পেন্টাগন। এদিকে, তেল শোধনাগারে ড্রোন হামলার বিস্তারিত প্রকাশ করেছে সৌদি সরকার। ক্ষয়ক্ষতির বিভিন্ন চিত্রের পাশাপাশি হামলার বিস্তারিত তথ্য তুলে ধরে আরামকো কর্তৃপক্ষ। আবকাইক শোধনাগারে ১৮ বার ও খুরাইস প্ল্যান্টে ৪ বার হামলা চালানো হয়েছে বলে জানায় তারা। এ সময় সাংবাদিকদের হামলার বিভিন্ন স্থান ঘুরিয়ে দেখানো হয়।   

Recommend to friends
  • gplus
  • pinterest

About the Author