কাজ শেষ হওয়ার আগেই সড়কে খানা-খন্দ

জয়পুরহাটের অধিকাংশ সড়কের বেহাল দশা। বছর ঘুরতে না ঘুরতেই পিচ-খোয়া উঠে  খানা-খন্দে পরিনত হয়েছে।  এছাড়া যানবাহনের ধীরগতিসহ দূর্ভোগে অতিষ্ঠ স্থানীয়রা। এ জন্যে ঠিকাদার ও সড়ক বিভাগের গাফিলতিকে দায়ী করছেন স্থানীয়রা।

সড়ক ও জনপথ বিভাগের অধিনে জয়পুরহাট জেলায় আঞ্চলিক সড়ক রয়েছে ১৯০ কিলোমিটার। আর  স্থানীয় সরকার প্রকৌশল বিভাগের আওতাভূক্ত প্রায় হাজার কিলোমিটার। এরমধ্যে ২শ’ কোটি টাকা ব্যয়ে সংস্কার ও পুননির্মাণের কাজ চলছে ৯০ কিলোমিটার রাস্তার। যার দেখভালের দায়িত্বে সওজ ও এলজিইডি কর্তৃপক্ষ।

কিন্তু কাজ শেষ হওয়ার আগেই বিভিন্ন সড়কের খোয়া ও পিচ উঠে সৃষ্টি হয়েছে খানা-খন্দ। সামান্য বৃষ্টিতেই পানি জমে গর্ত তৈরি হয়ে যান চলাচলের অনুযোগী হয়ে পড়েছে কয়েকটি সড়ক। ভাঙ্গাচোরা সড়কে চলাচল করতে গিয়ে প্রতিদিনই নষ্ট হচ্ছে যানবাহন। ঘটছে দুর্ঘটনাও। গন্তব্যে পৌঁছাতে  গাড়ির সময় লাগছে দ্বিগুন। আবার ব্যয় বাড়ার সঙ্গে দ্রুতই অকেজো হয়ে পড়ছে যানবাহন। এতে ক্ষতিগ্রস্থ হচ্ছেন পরিবহন মালিকরা।

নিন্মনের কাজের কারনেই রাস্তা-ঘাটের এমন বেহাল দশা বলে অভিযোগ স্থানীয়দের। তবে এমন অভিযোগ মানতে রাজি নন জয়পুরহাট নির্বাহী প্রকৌশলী মো. তানভীর সিদ্দীক। সড়কের স্থায়ীত্ব রক্ষায় নির্মান কাজের মান নিয়ন্ত্রিত ও ওভার লোডিং বন্ধে পদক্ষেপ নিবে সংশ্লিষ্টরা-এমন প্রত্যাশা স্থানীয়দের।

Recommend to friends
  • gplus
  • pinterest

About the Author