প্রবেশমুখে ডাস্টবিন থাকায় দুর্গন্ধে অতিষ্ট রাজধানীর মোহাম্মদপুরের এক’শ শয্যার মা ও শিশু স্বাস্থ্য হাসপাতালে সেবা নিতে আসা রোগী ও তাদের স্বজনরা। চিকিৎসকরা বলছেন, আশপাশের আবর্জনার কারণে রোগ-জীবানুতে আক্রান্ত হতে পারেন মা ও নবজাতক। স্থানীয়রা দ্রুত সরিয়ে নেয়ার দাবি জানালেও ঢাকা উত্তর সিটির প্রধান বর্জ্য ব্যবস্থাপনা কর্মকর্তা ক্যাপ্টেন এম মঞ্জুর হোসাইন জানান, পরিবেশ রক্ষায় ডাস্টবিনটির দেয়াল আরও উঁচু করে দেয়া হবে।

ঢাকা উত্তর সিটির মোহাম্মদপুরের
আওরঙ্গজেব রোডে ফার্টিলিটি সার্ভিসেস অ্যান্ড ট্রেনিং সেন্টারের ১০০ শয্যা বিশিষ্ট
মা ও শিশু স্বাস্থ্য হাসপাতাল। এর প্রবেশ মুখের বামপাশ ঘেষেই নির্মাণ করা হয়েছে
ডাস্টবিন।

হাসপাতালটিতে দূর-দূরান্ত
থেকে সেবা নিতে আসেন অনেক মা ও শিশু। ডাস্টবিনের ময়লা-আবর্জনার
দুর্গন্ধে অসুস্থ হয়ে পড়েন অনেকে। স্বাস্থ্য ঝুঁকি এড়াতে দ্রুত ডাস্টবিনটি সরিয়ে নেয়ার দাবি তাদের।

ডাস্টবিনের ময়লা আবর্জনার দুর্গন্ধে অতিষ্ট পথচারীরাসহ স্থানীয়রা। রাতে মাদকসেবীদের আনাগোনার কথাও জানান কেউ কেউ। ময়লা আবর্জনা থেকে ছড়াতে পারে বিভিন্ন ধরনের রোগ-জীবানু। যাতে আক্রান্ত হতে পারেন হাসপাতালে আসা মা ও নবজাতকরা, জানালেন হাসপাতালের মেডিকেল অফিসার।  

তবে, ডাস্টবিনটি সরিয়ে
নেয়ার কোন পরিকল্পনা নেই বলে জানিয়েছেন ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের প্রধান বর্জ্য
ব্যবস্থাপনা কর্মকর্তা।  পর্যায়ক্রমে খোলা
ডাস্টবিনগুলোকে দেয়াল ঘেরা ছাউনির মধ্যে আনার কথাও জানান তিনি।

Recommend to friends
  • gplus
  • pinterest

About the Author