টাঙ্গাইল থেকে বাসাইল হয়ে সখীপুর সড়কটি প্রশস্ত হয়নি আড়াই দশকেও। কিন্তু বেড়েছে যানবাহনের চাপ। টাঙ্গাইল ছাড়াও গাজীপুর ও ময়মনসিংহের ছয় উপজেলার প্রায় ১৫ লাখ মানুষ ব্যবহার করে সড়কটি। ঢাকা-টাঙ্গাইল সড়কে যানজট লাগলে বিকল্প হিসেবে ব্যবহৃত হয়ে থাকে সড়কটি। কিন্তু ১২ ফুটের সড়কটি দীর্ঘদিন প্রশস্ত ও সংস্কার না করায় দু’দিকে ভেঙ্গে সংকুচিত হয়ে এখন ৯ ফুটে পরিণত হয়েছে।

১৯৯৩ সালে টাঙ্গাইল-বাসাইল-সখীপুর
সড়কটি নির্মাণ করা হয়। টাঙ্গাইল থেকে বাসাইলের দূরত্ব ১০ কিলোমিটার। আর সখীপুরের দূরত্ব
প্রায় ৪০ কিলোমিটার। আড়াই দশকেও এই সড়কটি প্রশস্ত করা হয়নি। নামমাত্র সংস্কার হলেও
তেমন কাজে আসেনি। কিন্তু বেড়েছে যানবাহনের চাপ। টাঙ্গাইলের বাসাইল, সখীপুর, মির্জাপুর, ঘাটাইল ও ময়মনসিংহের ভালুকা, ফুলবাড়িয়া এবং গাজীপুরের শ্রীপুর উপজেলার প্রায় ১৫ লাখ মানুষের যাতায়াত এ সড়ক দিয়ে।

ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কে যানজটের সৃষ্টি হলে বিকল্প হিসেবে উত্তরাঞ্চলের ১৬টিসহ ২৬ জেলার যানবাহন ব্যবহার করে এ সড়ক। দীর্ঘদিন সংস্কার না করায় সড়কের বেশিরভাগ স্থানে গর্তের সৃষ্টি হয়েছে। এতে দুর্ভোগ পোহাচ্ছেন যাত্রী ও গাড়ি চালকরা।

সড়কটি সংস্কার ও ১৮ ফুট প্রশস্ত করতে একটি প্রকল্প সম্প্রতি একনেকে অনুমোদন হয়েছে বলে দাবি করলেন উপজেলা চেয়ারম্যান। জনগুরুত্বপূর্ণ এই সড়কটি অতি দ্রুতই সংস্কার ও প্রশস্ত করা হবে এমন প্রত্যাশা ভুক্তভোগিসহ সকলের।

Recommend to friends
  • gplus
  • pinterest

About the Author