লোকবল সংকটেও সেবা দিচ্ছে পরিবার পরিকল্পনা অধিদপ্তর

সীমিত অর্থ ও জনবল নিয়ে দেশজুড়ে প্রসূতি
মা, নবজাতক, শিশু ও নারীদের সেবা দিয়ে যাচ্ছে পরিবার পরিকল্পনা অধিদপ্তর। সেবাপ্রার্থীদের
সুবিধা অসুবিধার বিষয়টি মাথায় রেখে নতুন নতুন কর্মপদ্ধতি ও পরিকল্পনাও ঠিক করছে
তারা।

কেবল প্রসূতি ও গর্ভের সন্তানই না, নারী
ও শিশুর সবরকম সেবার খাতিরে এভাবেই বাড়িবাড়ি ছুটে যান ইউনিয়ন স্বাস্থ্যকেন্দ্রের
কর্মীরা। 

খাওয়া দাওয়া, ওঠাবসা, চলাফেরাসহ সব
বিষয়ে পরামর্শ দিয়ে থাকেন পরিবারগুলোকে।শুধু বাড়িতেই নয়, স্কুলগুলোতেও চলছে
স্বাস্থ্যসেবা কার্যক্রম।

পরিবার পরিকল্পনা অধিদপ্তরের ২০১৮ সালের
তথ্য অনুযায়ী, দেশজুড়ে মা ও শিশুস্বাস্থ্য নিয়ে সেবা দিচ্ছেন প্রায় ১৯ হাজার ৫৮৩ জন পরিবার
কল্যাণ সহকারী, প্রায় ৯ হাজার পরিদর্শক এবং ২ হাজার ৩০৭ জন উপ-সহকারী কমিউনিটি
মেডিকেল অফিসার। গেল বছর ১ লাখ ৩৪ হাজার ৩৩২ জন নারী-পুরুষকে স্থায়ী এবং কেবল ৫
লাখ ৬৫ হাজার ৯২৪ জন স্ত্রীকে দীর্ঘমেয়াদি পরিবার পরিকল্পনা পদ্ধতির সেবা দেয়া
হয়েছে।

তৃণমূলের বিপুল সংখ্যক মানুষকে
প্রয়োজনীয় সেবা দিতে যে পরিমাণ লোকবল থাকা দরকার তা নেই। আছে ওষুধেরও ঘাটতি।

রাজধানীর মোহাম্মদপুরে এই মা ও
শিশু স্বাস্থ্য কেন্দ্রে প্রতিদিন প্রায় ১০০০ রোগী আসেন সেবা নিতে।

সেবার মান আরও বাড়াতে আধুনিক
সরঞ্জাম সংগ্রহের পাশাপাশি নতুন নতুন প্রকল্প নেয়ার চেষ্টা করছে কর্তৃপক্ষ।

রোগির চাহিদা মাথায় রেখে সবার
আগে লোকবল সমস্যা সমাধানের ওপর জোর দিয়েছেন তিনি।

Recommend to friends
  • gplus
  • pinterest

About the Author