বেড়েই চলছে ডিমের দাম

গেলো এক মাসে দফায় দফায় সব
ধরণের ডিমের দাম বাড়ায় বিপাকে সাধারণ মানুষ। স্থান ও বাজার ভেদে ফার্মের ডিম বিক্রি
হচ্ছে ৩৮ থেকে ৪০ টাকা হালি।

আর দাম বৃদ্ধির কারণ নিয়ে
ভিন্ন ভিন্ন কথা বলছেন পাইকারী ব্যবসায়ীরা। ডিমের দাম বাড়ায় ডিম-নির্ভর খাদ্যপণ্যের
মূল্যবৃদ্ধির আশঙ্কাও করছেন তারা।

উৎপাদন কমে যাওয়ায় রোজার ঈদের
পর থেকেই বাড়তে শুরু করে ডিমের দাম। খুচরা বাজারে সাড়ে ৭ থেকে ৮ টাকার ডিম মাস
ঘুরতেই এসে দাঁড়িয়েছে ১০ টাকায়। তবে শীত মওসুমে  দাম কমতে পারে বলে জানালেন ব্যবসায়ীরা।

কারওয়ান বাজারের পাইকারী
ব্যবসায়ীরা জানান, চাহিদার তুলনায় উৎপাদন কম হওয়ায় ডিমের দাম বাড়ছে।  তবে আগামী শীতের ডিমের দাম কমতে পারে।

আরেক পাইকার বলেন, লোকসানের
কারণে ছোট ছোট খামার বন্ধ হয়ে যাওয়ার সুযোগকে কাজে লাগিয়ে বড় খামারমালিকরা কৃত্রিম
সংকট তৈরি করে ইচ্ছেমত দাম বাড়াচ্ছে।

হঠাৎ দাম বেড়ে যাওয়ায় ডিম কিনতে
সাধারণ ক্রেতারাও আসছেন পাইকারি বাজারে।

খুচরা ব্যবসায়ীরা বলেন,
পাইকারদের কাছ থেকে বেশি দামে ডিম কেনায় একপ্রকার বাধ্য হয়েই বেশি দামে ডিম বিক্রি
করা লাগছে।

বাজারে অন্য পণ্যের দামে
হিমশিম খাওয়া ক্রেতারা ডিমের মূল্য বৃদ্ধিতে পড়েছেন চরম অস্বস্তিতে।

সাধারণ ক্রেতারা বলেন, মুরগীর
খাদ্যের দাম বাড়ার তুলনায় ডিমের দাম বাড়ানো বেশি হয়ে গেছে।

চাহিদা সমন্বয় করে উৎপাদন
ব্যবস্থা ঠিক রাখা না গেলে ডিমের দাম নিয়ন্ত্রণ করা সম্ভব হবে না, এমন মত
ব্যবসায়ীদের।

Recommend to friends
  • gplus
  • pinterest

About the Author