শ্বাসরুদ্ধকর ম্যাচে ভারতের স্বপ্ন ভেঙ্গে কাঁদিয়ে বিশ্বকাপের ফাইনালে উঠলো নিউজিল্যান্ড। ম্যানচেস্টারের ওল্ড ট্রাফোর্ডে ভারতের বিশ্ব সেরা ব্যাটিং অর্ডারকে ধ্বংসস্তুপের মধ্যে ফেলে ১৮ রানে জয় তুলে নেয় ব্লাকক্যাপসরা। কিউইদের দেয়া ২৪০ রানের টার্গেটে ব্যাটিংয়ে নেমে ৩ বল বাকি থাকতেই ২২১ রানে গুটিয়ে যায় কোহলী বাহিনী। আরো জানাচ্ছেন আব্দুল আলীম।

ওল্ড ট্রাফোর্ডে কিউদের দেয়া মাত্র ২৪০
রানের টার্গেটে ব্যাটিংয়ে নেমেই বিপর্যয়ে পড়ে ভারত। বিশ্বের সেরা ব্যাটিং অডার দাবিদাররা
স্তব্ধ হয়ে পড়ে কিউই বোলারদের সামনে। টালমাটাল হয়ে পড়েন বিরাট কোহলীও। চোকারদের
সামনে দাড়ানোর সাহস-ই পেলনা কেউ। রোহিত কিংবা রাহুল। পাত্তায় পায়নি তারা।
বোলারদের সাতকলার পূর্ণতা, শুধু চেয়ে চেয়েই দেখলো ভারত। বোলারদের শাসন করা প্রতিটি
ব্যাটসম্যান অসহায়ত্ব প্রকাশ করে। ক্রিজ যেনো শোষণ করে দিলো কোহলীদের। সঙ্গে বিদায়
বিশ্বকাপ থেকে।

হ্যানরি-বোল্ট ও শান্তনারের বোলিংয়ে
বিধ্বস্ত হয়ে পড়ে ভারতের ব্যাটিং অর্ডার। দলীয় ৫ রানে ৩ উইকেট আর ২৪ রানে চার
উইকেট, পরে ৯২ রানের মধ্যে টপঅডার ৬ ব্যাটসম্যানকে হারিয়ে টালমাটাল সাবেক
বিশ্বচ্যাম্পিয়নরা। তবে জাদেজা ও ধোনীর ব্যাটিংয়ে স্বপ্ন দেখালেও শেষে কাঁদতেই হলো
কোহলী বাহিনীকে। তাদের ১শ
রানের বিধ্বংশী জুটি ভাঙ্গেন বোল্ট। এরআগেই
৭৭ রান করে নেন জাদেজা।

ভুবেনেশ্বরকে নিয়ে অন্যপ্রান্তে থাকা ধোনি জয়ের পথে হাটলেও, ৫০ রানে রান আউটের ফাদেঁ পড়েন। এরপর ভুবেনেশ্বর ও চাহালকে ফিরিয়ে ৩ বল হাতে রেখেই ১৮ রানে জয় তুলে নেয় নিউজিল্যান্ড।  এর ফলে টানা দ্বিতীয়বারের মতো ফাইনালে উঠে কিউরা।

এরআগে, টস জিতে ব্যাটিংয়ে নেমে নিউজিল্যান্ড ৫ উইকেটে ২১১ রান করলে, বৃষ্টির বাধায় ম্যাচ গড়ায় রিজার্ভ ডেতে। দ্বিতীয় দিনে মাঠে নেমে টেইলরের ৭৪ ও উইলিয়ামসনের ৬০ রানের সুবাদে ৮ উইকেটে ২৩৯ রান সংগ্রহ করে নিউজিল্যান্ড।

Recommend to friends
  • gplus
  • pinterest

About the Author