চট্টগ্রামে জলাবদ্ধতায় দূর্ভোগ চরমে

অতিবৃষ্টি, অপর্যাপ্ত ড্রেনেজ ব্যবস্থার পাশাপাশি জোয়ারের পানি ঠেকানোর মতো কার্যকর কোনো ব্যবস্থা না থাকায় প্রায়ই পানিতে তলিয়ে যাচ্ছে বন্দরনগরী চট্টগ্রাম। তারপরও আছে দখল ও নিয়মিত পরিষ্কার না করার মতো সমস্যা। ফলে সৃষ্টি হচ্ছে স্থায়ী জলাবদ্ধতার। সিটি মেয়র বারবার আশ্বাস দিলেও ভোগান্তি থেকে মুক্তি মিলছেনা নগরবাসীর।

সাগর বেষ্টিত ৬০ বর্গমাইলের বন্দরনগরী চট্টগ্রাম দিয়ে বয়ে গেছে কর্ণফুলী নদী। জুন থেকে আগস্ট পর্যন্ত বর্ষাকালে সারাদেশের তুলনায় চট্টগ্রামের বৃষ্টিপাতের পরিমাণ অনেক বেশি। গত তিনদিনে তিনশ মিলিমিটারের বেশি বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে। এছাড়া ঘুর্ণিঝড় মোরা ও পরবর্তী নিন্মচাপের ফলে গত এক মাসের বেশি সময় ধরে চট্টগ্রামে লাগাতার প্রবল বর্ষণ চলছে।

প্রবল বর্ষণে নগরীর নিচু এলাকা বাকলিয়া, চকবাজার, মুরাদপুর, ষোলশহর, বহদ্দারহাট, হালিশহর ও আগ্রাবাদ এলাকা এখন পানির নিচে।

জলাবদ্ধতার জন্য ড্রেনগুলোর পানি ধারণ কমে যাওয়ার পাশাপাশি নগরীতে ঢুকে যাওয়া জোয়ারের পানি বের হতে না পারাকে চিহ্নিত করেছেন নগর বিশেষজ্ঞরা।

আর বরাবরের মতোই জলাবদ্ধতা নিরসনে আশ্বাস দিলেন চট্টগ্রা্ম সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দিন।

Recommend to friends
  • gplus
  • pinterest

About the Author

Leave a comment