বাম্পার ফলনেও লাভের মুখ দেখছেন
না বগুড়ার আলু চাষিরা। মৌসুমে দাম কমে যাওয়ায় লোকসানের মুখে কৃষক। হিমাগারে রেখেও লোকসানের
শঙ্কায় তারা। এমন পরিস্থিতিতে সঠিক বাজার ব্যবস্থাপনা ও আলু রপ্তানির দাবী কৃষক
এবং হিমাগার মালিকদের। বগুড়া প্রতিনিধি আতিক রহমানের তথ্য ও চিত্রে ডেস্ক রিপোর্ট।

কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতরের
তথ্য অনুযায়ী, বগুড়া জেলায় এবার ৫৮ হাজার হেক্টর জমিতে প্রায় ১২ লাখ মেট্রিক টন
আলু উৎপাদিত হয়েছে। আগাম আলুতে  কিছুটা
ভালো দাম পেলেও বর্তমানে কমে যাওয়ায় হাতাশ কৃষকরা।

জেলার ৩৩টি কোল্ড স্টোরেজে
২ লাখ মেট্রিক টন আলু সংরক্ষনের ব্যবস্থা রয়েছে। খরচের তুলনায় মুনাফা পাচ্ছেন না
হিমাগার মালিকরা।

রপ্তানিযোগ্য উন্নত জাতের
আলু উৎপাদিত হলে সবাই লাভবান হবেন বলে আশা কৃষি বিভাগের।

আলুর বহুমুখি ব্যবহারসহ
অতিরিক্ত আলু রপ্তানির উদ্যোগের দাবি কৃষক ও  হিমাগার সংশ্লিষ্টদের।

Recommend to friends
  • gplus
  • pinterest

About the Author