দেশের কয়েকটি স্থানে ঈদের নামাজ অনুষ্ঠিত

প্রতিবছরের মতো এবারো সৌদি আরবের সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখে দেশের কয়েকটি স্থানে পালিত হচ্ছে পবিত্র ঈদুল ফিতর। ঈদের নামাজ আদায় শেষে বিশ্ব মুসলিম ওম্মাহর শান্তি কামনায় আল্লাহ তায়ালার দরবারে মোনাজাত করা হয়। দীর্ঘ দিন তারা মধ্যপ্রাচ্যের সাথে মিল রেখে রোজা, ঈদুল ফিতর ও ঈদুল আযহা পালন করে আসছে।

বিশ্বের ৬৯টি দেশের সঙ্গে মিল রেখে চাঁদপুরে পালিত হচ্ছে পবিত্র ঈদুল ফিতর। হাজীগঞ্জ উপজেলার সাদ্রা, সমেশপুর, অলীপুর, বলাখাল, মনিহার, মতলবের দশালী মোহনপুর এবং কচুয়ার কয়েকটিসহ মোট ৪০ গ্রামে পালিত হয় ঈদ।

চট্টগ্রামের ৮টি উপজেলার ৫০টি গ্রামে পালিত হচ্ছে পবিত্র ঈদুল ফিতর। সাতকানিয়ার সিলসিলিয়া আলিয়া জাহাঙ্গীর পীর দরবার শরীফের অনুসারীরা ৫৫ বছর ধরে সৌদি আরবের সঙ্গে ঈদ পালন করছে।

মাদারীপুর সদর উপজেলার পাঁচখোলা, জাজিরা, মহিষের চর, জাফরাবাদ, কালকিনি উপজেলার রমজানপুর, আলীনগর, খাসেরহাটসহ ৩০ গ্রামে পালিত হচ্ছে ঈদুল ফিতর। সুরেশ্বর দায়রা শরীফের প্রতিষ্ঠাতা হযরত জান শরীফ শাহ সুরেশ্বরীর অনুসারীরা ১৪২ বৎসর ধরে এভাবেই রোজা ও ঈদ পালন করেছে।

পটুয়াখালীর গলাচিপা, রাঙ্গাবালি ও কলাপাড়া উপজেলার ২৫ গ্রামের কাদেরিয়া চিশতিয়া তরিকার প্রায় ৩০ হাজার অনুসারী ঈদুল ফিতর পালন করছেন।

 নারায়নগঞ্জের সদর, রুপগঞ্জ, আড়াইহাজার, সোনারগাঁ ও বন্দর উপজেলায় পালিত হচ্ছে ঈদুল ফিতর।

 মৌলভীবাজার সদর, কুলাউড়া, শ্রীমঙ্গল ও বড়লেখাসহ জেলার বিভিন্ন এলাকায় পালিত হচ্ছে ঈদুল ফিতর। এখানে প্রধান জামাত অনুষ্ঠিত হয় জেলা সার্কিট হাউজ এলাকায়।

ঢাকার ধামরাইয়ের তেতুলিয়া ও শরীফবাগের ১০ গ্রামের মানুষ পালন করছেন পবিত্র ঈদুল ফিতর। এসব এলাকার মুসল্লিরা ঈদের জামাতে অংশ নিতে ভোর থেকেই রওয়ানা দেন রাজধানী ঢাকার পান্থপথের উদ্যেশে।

লক্ষ্মীপুরের রায়পুর ও রামগঞ্জের ১০ গ্রামেও উদযাপিত হচ্ছে ঈদুল ফিতর। ৩২ বছর ধরে এসব এলাকার মানুষ সৌদিআরবের সঙ্গে মিল রেখে দু’টি ঈদ উদযাপন করছেন।

বরিশাল নগরীর কয়েকটি স্থানে ঈদুল ফিতরের জামাত অনুষ্ঠিত হয়। চট্টগ্রামের চন্দনাইশ উপজেলার এলাহাবাদ দরবার শরীফের অনুসারির দির্ঘদিন সৌদি আরবের সঙ্গে মিল রেখে ঈদ উদযাপন করে আসছেন।

নোয়াখালী জেলার ২৫টি গ্রামেও পালিত হয় ঈদুল ফিতর। ১৯৫২ সাল থেকে মাওলানা আবদুল হামিদ অনুসারিরা আরব দেশের সঙ্গে মিল রেখে ঈদ উদযাপন করে আসছেন।

এছাড়া দিনাজপুর, বরগুনা, শেরপুর, মুন্সীগঞ্জ, শরীয়তপুরের সদর ও নলিতাবাড়ি, পিরোজপুরের মঠবাড়িয়া, ঝিনাইদহের হরিণাকুন্ড, ভোলা চাপাইনবাবগঞ্জ জেলার বিভিন্ন গ্রামে পালিত হচ্ছে পবিত্র ঈদুল ফিতর।

Recommend to friends
  • gplus
  • pinterest

About the Author

Leave a comment