চুক্তির ২১ বছরেও শান্তি ফেরেনি পার্বত্য চট্টগ্রামে

পার্বত্য চট্টগ্রাম শান্তি চুক্তির ২১তম বর্ষপূর্তি আজ। এ চুক্তির মধ্য দিয়ে পাহাড়ে সশস্ত্র সংগ্রামের অবসান হয়। স্বাভাবিক জীবনে ফিরে আসে আন্দোলনকারীরা। তবে চুক্তি বাস্তবায়ন নিয়ে পাহাড়িদের যেমন রয়েছে হতাশা, তেমনি বাঙালীদের রয়েছে বিরোধীতা। দুই দশকেও চুক্তির পূর্ণাঙ্গ বাস্তবায়ন না হওয়ার জন্য রাজনৈতিক সদিচ্ছার অভাবকে দায়ি করলেন স্থানীয়রা।

পাকিস্তান শাসনামলে জল বিদ্যুতের নামে কাপ্তাই বাঁধ তৈরীকে ঘিরেই পাহাড়ে শুরু হয় শান্তিবাহিনীর সশস্ত্র আন্দোলন। স্বায়ত্তশাসনের দাবিতে পাহাড়িদের সশস্ত্র সংগ্রামে দুই যুগ আগেও অশান্ত ছিল পার্বত্য চট্টগ্রামের তিন জেলা খাগড়াছড়ি, রাঙ্গামাটি ও বান্দরবান। ১৯শ’৯৭ সালের ২ডিসেম্বর সরকার ও পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতির মধ্যে শান্তি চুক্তি সাক্ষরিত হয়। চুক্তি অনুযায়ী ১৯শ’ ৯৮ সালে জনসংহতি সমিতির তৎকালীন শান্তি বাহিনীর প্রায় ২ হাজার সদস্য অস্ত্র জমা দিয়ে স্বাভাবিক জীবনে ফিরে আসে।

চুক্তির ২০ বছর পেরিয়ে গেলেও তা বাস্তবায়ন নিয়ে অভিযোগের অন্ত নেই পাহাড়িদের। আর, চুক্তির ফলে নিজেদের অধিকার বঞ্চিত হওয়ার অভিযোগ বাঙালীদের।

এদিকে, চুক্তি বাস্তবায়ন না হওয়ার জন্য রাজনৈতিক সদিচ্ছার অভাবকে দায়ি করলেন পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতির নেতারা। আর চুক্তির বেশিরভাগ বাস্তাবানের দাবি করলেন জনপ্রতিনিধিরা।

এর পরেও নতুন সরকার চুক্তির পূর্ণাঙ্গ বাস্তবায়নের মাধ্যমে পাহাড়ে শান্তি বজায় রাখতে উদ্যোগ নেবে বলে আশা তাদের।

তবে চুক্তির ৪টি খন্ডে ৭২টি ধারার মধ্যে ৬৮টি বাস্তবায়ন হয়েছে। ১৫টির আংশিক বাস্তবায়ন হলেও ৯টির বাস্তবায়ন প্রক্রিয়া চলমান।

Recommend to friends
  • gplus
  • pinterest

About the Author

Leave a comment