মুঠোফোনের মাত্রাতিরিক্ত ব্যবহার শারীরিক ও মানসিক নানা সমস্যা সৃষ্টি করছে। অতি প্রয়োজনীয় এই যন্ত্রটি থেকে নির্গত তেজস্ক্রিয়তার প্রভাবে কমছে শ্রবণশক্তি, চাপ বাড়ছে মস্তিষ্কে। ক্ষতিকর এই তেজস্ক্রিয়তা থেকে বাচঁতে মুঠোফোন ব্যবহারে সতর্ক থাকার পরামর্শ দিয়েছেন চিকিৎসকরা।

প্রযুক্তি নির্ভর এই যুগে যোগাযোগের গুরুত্বপূর্ণ মাধ্যম মোবাইল ফোন। এ যন্ত্রটি শুধু কথা বলায় নয়, ব্যবহার হচ্ছে সামাজিক সাইট কিংবা বিনোদনের মাধ্যম হিসেবেও। বিজ্ঞানিদের মতে, কথা বলার সময় মোবাইল ফোন থেকে যে তেজস্ক্রিয়তা নির্গত হয় তা মানবদেহের জন্য ক্ষতিকর।

পরিসংখ্যান মতে, প্রয়োজন অপ্রয়োজনে মোবাইল ফোন ব্যবহারে শীর্ষে তরুণ প্রজন্ম। যাদের অনেকেই স্বীকার করলেন মাত্রাতিরিক্ত ব্যবহারের কুফল সম্পর্কে। চিকিৎকরা জানান,  মুঠোফোনে অতিরিক্ত কথা বলার কারণে বাড়ছে শারীরিক ও মানসিক সমস্যা। সবচেয়ে বেশি প্রভাব পড়ছে মস্তিষ্কে।

গবেষকদের মতে, টানা এক ঘণ্টা বা তার বেশি সময় মোবাইলে কথা বললে ব্রেনের উপর চাপ পড়ে। দশ বছর ধরে মোবাইল ব্যবহার করলে মস্তিষ্ক কোষের অস্বাভাবিক বৃ‌দ্ধিও হতে পারে।  ভিডিও দেখতে নিচের লিংকে ক্লিক করুন…

মোবাইল ফোন ব্যবহারে বাড়ছে শারীরিক ও মানসিক সমস্যা।

মোবাইল ফোন ব্যবহারে বাড়ছে শারীরিক ও মানসিক সমস্যা।

Posted by Mohona tv on Wednesday, 19 September 2018

Recommend to friends
  • gplus
  • pinterest

About the Author

Leave a comment