একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন সামনে রেখে প্রস্তুতি প্রায় শেষ করে এনেছে নির্বাচন কমিশন। তফসিল ঘোষণার ও পরে দুই ধাপে অন্তত ৯০টি করণীয় চিহ্নিত করে সে অনুযায়ী কাজ করছে তারা। ইতোমধ্যেই শেষ হয়েছে সংসদীয় আসনের সীমানা নির্ধারণ। এখন চলছে নির্বাচনী সামগ্রী কেনাকাটার কাজ।

সরকারের মেয়াদ শেষ হওয়ার ৯০ দিনের মধ্যে জাতীয় নির্বাচনের সাংবিধানিক বাধ্যবাধকতা রয়েছে। আগামী ৩০ অক্টোবর শেষ হচ্ছে বর্তমান সরকারের মেয়াদ। সে হিসেবে পরের বছরের ২৮ জানুয়ারির মধ্যে শেষ করতে হবে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন।

যথাসময়ে নির্বাচন শেষ করতে অনেক আগেই কাজ শুরু করে নির্বাচন কমিশন। এরি মধ্যে সিংগভাগ প্রস্তুতি শেষও করে ফেলেছে তারা।

বর্তমান নির্বাচন কমিশনের বয়স প্রায় দেড় বছর। তাদের অধীনে বেশ কটি সিটি করপোরেশনের ভোট হলেও জাতীয় নির্বাচনের অভিজ্ঞতা এই প্রথম।

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের সম্ভাব্য বাজেট ধরা হয়েছে ৬৭৫কোটি টাকা। এরমধ্যে নির্বাচন পরিচালনার চেয়ে আড়াই গুণ বেশি ব্যয় হবে আইনশৃঙ্খলা রক্ষায়। ইতোমধ্যে ভোটার তালিকা ও  ভোট কেন্দ্রের প্রাথমিক তালিকা চূড়ান্ত করা হয়েছে।  চূড়ান্ত ভোটার তালিকা ছাপার কাজ শুরু হবে ২৫ সেপ্টেম্বরের পর আর  ভোটের ২৫দিন আগে প্রকাশ হবে ভোটকেন্দ্রের চূড়ান্ত তালিকার গেজেট

Recommend to friends
  • gplus
  • pinterest

About the Author

Leave a comment