সিসি ক্যামেরার বদৌলত সাতক্ষীরা শহরে কমে এসেছে অপরাধের মাত্রা। স্বস্তি ফিরেছে শহরবাসীর মধ্যে। এ কার্যক্রম পর্যবেক্ষন করা হচ্ছে পুলিশ সুপার কার্যালয় থেকে। ধীরে ধীরে পুরো জেলাকে সিসি ক্যামেরার আওতায় আনার পরিকল্পনা আছে বলে জানিয়েছেন পুলিশ সুপার।

অস্ত্র, মাদক চোরাচালান, ছিনতাইসহ নানা অপরাধে বেড়ে যাওয়ায় শহরবাসীর নিরাপত্তায় নড়েচড়ে বসে সাতক্ষীরা পুলিশ প্রশাসন। জেলা সদরে অপরাধপ্রবণ ৪১টি এলাকা চিহিৃত করে তারা। এরপর এসব এলাকায় স্থাপন করা হয় ক্লোজ সার্কিট ক্যামেরা, যা সার্বক্ষনিক পর্যবেক্ষন করা হচ্ছে পুলিশ সুপার কার্যালয় থেকে।

সিসি ক্যামেরা স্থাপনের পর অনেকটাই নিয়ন্ত্রণে এসেছে চুরি, ডাকাতি, অস্ত্র, মাদক ব্যবসা এবং সহিংসতামূলক কর্মকাণ্ড। তবে বড় একটা দুর্বলতা রয়ে গেছে। সড়ক বাতি না থাকায় রাতের বেলা তেমন একটা কাজে আসে না সিসি ক্যামেরা।

অপরাধ নিয়ন্ত্রণে প্রযুক্তির ব্যবহার অব্যাহত থাকবে বলে জানালেন পুলিশ সুপার, শহরের গুরুত্বপূর্ণ স্থানে ইতোমধ্যে ১শ ৩৩টি সিসি ক্যামেরা স্থাপন করা হয়েছে।

Recommend to friends
  • gplus
  • pinterest

About the Author

Leave a comment