যুদ্ধ বিধ্বস্ত, সদ্যস্বাধীন দেশ পুনর্গঠনে ব্যস্ত ছিলেন জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। এসময়ই স্বপরিবারে তাঁকে হত্যা করে স্বাধীনতা বিরোধীরা। তার হত্যায় গর্জে না উঠে বরং নিরব ছিলেন সহযোদ্ধারা। তাদের নিরবতা খুনীদের আরও সাহসী করে। ফলে ইতিহাস তাদের ক্ষমা করবে না বলে ক্ষোভ জানালেন তৎকালীণ রাজনীতি ও গণমাধ্যম কর্মীরা। নতুন প্রজন্মকে সঠিক ইতিহাস ও বঙ্গবন্ধু আদর্শ ধারণ করে এগিয়ে যাওয়ার আহবানও জানান তারা।

১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্টে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে যাওয়ার কথা ছিল প্রিয় নেতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের। সেই প্রস্তুতি শেষ হয় ১৪ আগস্ট রাতে। আর ১৫ আগস্টের প্রথম প্রহরে শুনতে হয় স্বপরিবারে প্রিয় নেতা হত্যার বেদনাদায়ক খবরটি।

বাংলাদেশ বেতারে ভেসে আসা খবরটি স্তব্ধ করে দেয় স্বাধীন দেশবাসীকে। তবে ১৫ আগস্টের শোকাবহ ঘটনায় প্রতিবাদী হয়ে ওঠেন কেউ কেউ। জীবনের ঝুঁকি নিয়ে প্রতিবাদী হয়ে ওঠেন তারা।

নতুন প্রজন্মকে বঙ্গবন্ধুর আদর্শে অনুপ্রাণিত হয়ে দেশের জন্য কাজ করার আহবান জানান তৎতকালীন এই রাজনীতি কর্মীরা।

ভিডিও দেখতে নিচের লিংকে ক্লিক করুন।

 

 

Recommend to friends
  • gplus
  • pinterest

About the Author

Leave a comment