আবাসস্থল কমে যাওয়ায় ও শিকারিদের দৌরাত্মে হারিয়ে যাচ্ছে নানা প্রজাতির পাখি। এতে একদিকে ভারসাম্য হারাচ্ছে প্রকৃতি, তেমনিভাবে বিলুপ্ত হচ্ছে জীববৈচিত্র্য।

একসময় গ্রামগঞ্জের খাল-বিল, নদীনালা এবং ঝোপঝাড় মুখর থাকত নানা রকম পাখির কোলাহলে। সে চিত্র এখন আর নেই বললেই চলে। পানকৌড়ি, ঘুঘুসহ অনেক প্রজাতির পাখিই বিলুপ্তির পথে।

জনসংখ্যা বৃদ্ধির সঙ্গে নির্বিচারে বনবাদাড় উজাড় হয়ে যাওয়া এবং শিকারিদের দৌরাত্মে অস্তিত্ব সঙ্কটে পড়েছে অসংখ্য জাতের পাখি। পাখি শিকার বন্ধে কাজ করছে  প্রাণি সম্পদ অধিদপ্তর। এমনটাই জানালেন এ কর্মকর্তা।

প্রাকৃতিক ভারসাম্য ও জীবৈচিত্র্য রক্ষায় পাখিদের আবাসস্থল নিশ্চিত ও শিকারিদের আগ্রাসন বন্ধের দাবি জানিয়েছেন সাধারণ মানুষ।।

Recommend to friends
  • gplus
  • pinterest

About the Author

Leave a comment