নিরাপদ সড়কের দাবিতে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা আজও  অবস্থান নিয়েছে রাজধানীর বিভিন্ন সড়কে। এরমধ্যে রামপুরা ও সায়েন্স ল্যাবরেটরীতে ত্রিমুখী সংঘর্ষে আহত হন বেশ কয়েকজন। এছাড়া ভাংচুর চালানো হয় গণমাধ্যমের গাড়িতে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে কয়েকটি স্থানে পুলিশ কঠোর অবস্থান নেয়। এদিকে, ট্রাফ্রিক সপ্তাহের উদ্বোধন করে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী জানান, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে অপপ্রচার ও গুজব ছড়ানো ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে। অন্যদিকে, পরিবহন মালিক শ্রমিকদের অঘোষিত ধর্মঘটে দুর্ভোগের শিকার হন সাধারণ মানুষ।

দাবি পুরণ হয়েছে, তাই আন্দোলন প্রত্যাহার করে শিক্ষার্থীদের ঘরে ফিরে যাওয়ার আহ্বান সবার। এছাড়া গণপরিবহন ধর্মঘটের কারণে দুর্ভোগে পড়া  নগরবাসী পরিস্থিতির পরিবর্তন চান।

সকাল থেকেই নগরীর বিভিন্ন স্থানে অবস্থান নেয় শিক্ষার্থীরা।  পুলিশী বাধার মুখে এলিফ্যান্ট রোডসহ বিভিন্ন স্থানে সংঘর্ষে জড়িয়ে পরে শিক্ষার্থীরা। ধাওয়া- পাল্টা ধাওয়া, টিয়ারসেল নিক্ষেপে রণক্ষেত্রে পরিণত হয় স্থানগুলো।

এদিকে, ট্রাফিক সপ্তাহ উদ্বোধন করে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল বলেন, ধৈর্যের সীমা অতিক্রম করলে আইন শৃঙ্খলা বাহিনী বসে থাকবে না।

 

 

Recommend to friends
  • gplus
  • pinterest

About the Author

Leave a comment