গুজব ছড়ানোর অভিযোগে অভিনেত্রী ও মডেল কাজী নওশাবা আহমেদকে ৪ দিনের রিমান্ডে নেয়া হয়েছে। শনিবার ফেসবুক লাইভ ও পোস্টের মাধ্যমে নওশাবা রাজধানীর জিগাতলায় ৪ জনের মৃত্যু ও মেয়েদের ধর্ষনের গুজব ছড়ায়। তার সৃষ্ট গুজবের কারণে ধানমণ্ডি এলাকা পরিণত হয় রণক্ষেত্রে। পরিস্থিতি সামাল দিতে রাতেই তাকে আটক করা হয়।

আজ সকালে তাকে উত্তরা থানায় সোপর্দ করার পর তাকে আদালতে হাজির করা হয়। পুলিশের পক্ষ থেকে রিমান্ডের আবেদন করলে আদালত চার দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করে।

জিগাতলায় নিরাপদ সড়কের দাবিতে আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীদের ওপর হামলায় চার ছাত্রের মৃত্যু এবং একজনের চোখ তুলে ফেলার’ কথা নিজের ফেসবুকে ছড়ান নওশবা। সংঘর্ষে শিক্ষার্থীদের মৃত্যুর গুজব ছড়িয়ে পড়লে অভিনেত্রী নওশাবা বিকেল চারটার দিকে ফেসবুক লাইভে আসেন। ১ মিনিট ৩৭ সেকেন্ডের লাইভ ভিডিওর শুরুতেই তিনি বলেন, ‘আমি কাজী নওশাবা আহমেদ বলছি, আপনাদের জানাতে চাই, একটু আগে জিগাতলায় আমাদের ছোট ভাইদের একজনের চোখ তুলে ফেলা হয়েছে এবং চারজনকে মেরে ফেলা হয়েছে।

পরে নওশাবা স্বীকারোক্তিতে জানিয়েছেন, সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে লাইভে আসার আগে তিনি ঘটনাস্থলে ছিলেন না। গুজব ছড়ানোর অভিযোগে গতকাল শনিবার রাতে রাজধানীর উত্তরা এলাকা থেকে নওশাবাকে আটক করেছে র‍্যাব।

 

Recommend to friends
  • gplus
  • pinterest

About the Author

Leave a comment