ইতিহাস, ঐতিহ্য, সংস্কৃতি, জীবনধারা ও শৈল্পিক স্থাপত্যের মেলবন্ধন পুরোনো ঢাকা।  আহসান মঞ্জিল, লালবাগ কেল্লা ছাড়াও রয়েছে বেশ কিছু জমিদার বাড়ী। পর্যটন শিল্পের সঙ্গে জড়িতরা বলছেন, ঐতিহ্যবাহী নিদর্শন থাকা সত্ত্বেও কিছু সমস্যা ও প্রচারণার অভাবে বিদেশী পর্যটকদের অজানা রয়ে গেছে রাজধানীর এই অংশটি।  বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের স্থাপত্য বিভাগের গবেষণায় বলা হয়েছে, অবকাঠামো উন্নয়নের মাধ্যমে পুরান ঢাকা হয়ে উঠতে পারে সম্ভাবনাময় পর্যটনকেন্দ্র।

পিচ ঢালা পথে ঘোড়ার গাড়ী আর বুড়িগঙ্গা নদীতে নৌ-যান। আছে তামা, কাঁসা ও পিতলে তৈজসপত্র তৈরীর কারিগররা। বাংলো ধাঁচের বাড়িতো আছেই, সেই সঙ্গে রয়েছে ৪শ’ বছরের পুরনো স্থাপত্য।

কিছু উদ্যোগই পুরান ঢাকাকে পর্যটনের কেন্দ্রবিন্দুতে পরিণত করতে পারে। বুয়েটের স্থাপত্য বিভাগের গবেষণায় বলা হয়েছে, পর্যটকদের আকৃষ্ট করতে স্থাপনার কাঠামো ও নকশা অপরিবর্তিত রেখে নতুনভাবে সাজাতে হবে পুরান ঢাকাকে।

বিদেশী পর্যটকরা পুরনো শহর বা ঐতিহ্যবাহী স্থাপনা দেখতে আগ্রহী। তাই সবার সম্মিলিত চেষ্টায় পুরান ঢাকা হতে পারে বিশ্বের অন্যতম আকর্ষণীয় পর্যটনকেন্দ্র।

Recommend to friends
  • gplus
  • pinterest

About the Author

Leave a comment