সন্তান প্রসবের ক্ষেত্রে দেশে অপ্রয়োজনীয় সিজারিয়ান ডেলিভারি সংখ্যা দিন দিন বেড়ে যাচ্ছে। অভিযোগ রয়েছে, প্রাইভেট হাসপাতালগুলোর লোভের কারণে সিজারিয়ান পদ্ধতিতে সন্তান প্রসব করান। জনস্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা বলছেন, সিজার পদ্ধতিতে সন্তান জন্মদানে, মা ও শিশু দুজনেরই শারিরীক আশংকা থেকে যায়।

নিরাপদ সন্তান প্রসব প্রত্যেক মায়েরই কাম্য। নিরাপদ মাতৃত্বের ক্ষেত্রে সিজার পদ্ধতি  নয়, স্বাভাবিক প্রসবকেই বেশী গুরুত্ব দিলেন প্রসূতিবিদ্যা বিশেষজ্ঞ ডা. তৌহিদা আহসান।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার মতে, যে কোন দেশে সিজারিয়ান অপারেশনের হার হওয়া উচিত, সর্বমোট প্রসবের ১০ থেকে ১৫ ভাগ।  কিন্তু  জনস্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞ ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলছেন, গেল ৮ বছরে এই হার ১২ শতাংশ থেকে বেড়ে ৩১ শতাংশ হয়েছে। এ জন্য অভিভাবকদেরই দুষলেন তিনি।

অধিকাংশ মা-ই বলছেন, স্বাভাবিক প্রসব চাইলেও চিকিৎসকরা প্রসূতি ও নবজাতকের জীবন শঙ্কার ভয় দেখিয়ে অপারেশন করতে বাধ্য করেন। প্রাইভেট হাসপাতালগুলো অধিক লাভের আশায় প্রয়োজন ছাড়াই সিজার করান বলে অভিযোগ রয়েছে।

অপ্রয়োজনীয় সিজারিয়ান অপারেশন বন্ধে প্রয়োজনীয় আইন  ও তার যথাযথ প্রয়োগ নিশ্চিত করার আহ্বান জানিয়েচেন সংশ্লিষ্টরা।

Recommend to friends
  • gplus
  • pinterest

About the Author

Leave a comment