শেষ হয়েছে দ্যা গ্রেটেস্ট শো অন আর্থ খ্যাত ফুটবলের সর্বোচ্চ আসর ফিফা বিশ্বকাপ। দীর্ঘ একমাসের উত্তেজনা, আনন্দ-বেদনা ও হাসি-কান্নায় ভরপুর ছিলো ফুটবলের সবচেয়ে মর্যাদার এ আসর। মাঠে বসে নেইমার-মেসি, এমবাপ্পেদের নৈপুন্য দেখতে আসা লাখো দর্শক ছাড়াও স্টেডিয়ামের বাইরেও খেলা উপভোগ করেছেন অসংখ্য মানুষ। বিশ্বকাপ চলাকালীন পুরো রাশিয়াই যেনো পরিণত হয়েছিলো রঙিন গ্যালারিতে। এর রেশ ছড়িয়ে পড়েছিলো সারা বিশ্বে।

প্রিয় খেলোয়াড়দের পাশাপাশি সমর্থকদের বর্ণিল উপস্থিতি বরাবরই বিশ্বকাপের অন্যতম আকর্ষণ। এবারো এর কমতি ছিলো না। প্রিয় তারকাদের জয়-পরাজয়ে আনন্দ উদযাপন কিংবা হতাশার অশ্রুসিক্ত অসংখ্য দর্শক এবারো কেড়ে নিয়েছে গণমাধ্যমের চোখ।

বর্ণিল পোশাক, চেহারা বা গায়ে নিজ দেশের পতাকা বা রং মেখে গ্যালারিকে দর্শক করে তুলেছিলেন উজ্জল। স্বাগতিক দেশ হওয়ায় এতে এগিয়েই ছিলো রাশিয়ানরা। বিশেষ করে সাবেক মিস মস্কো নাতালিয়া নেমচিনোভার আবেদনময়ী উপস্থিতি সবার নজর কেড়েছে।

আলোচনায় ছিলো ইরানিরা। মাঠে বসে নিজ দলের খেলা দেখে সবার নজর কারে কট্টরপন্থী দেশটির মেয়েরা। ব্রাজিলের সাম্বা আগের মতো দেখা না গেলেও গ্যালারি কিংবা রাস্তায় হলুদ জার্সির উন্মাদনা ছিলো চোখে লাগার মতো। ৩২টি দলের অসংখ্য দর্শকের আকর্ষণীয় উপস্থিতি থেকে খুব একটা বঞ্চিত হয়নি এবারের বিশ্বকাপ।

তবে সবাইকে ছাপিয়ে দেশপ্রেমিক ফুটবলপাগল দর্শকের খ্যাতি পেয়েছেন ক্রোয়েশিয়ার প্রেসিডেন্ট কোলিন্ডা গ্র্যাভার কিতারোভিচ। গ্যালারিতে বসে নিজ দেশের খেলা উপভোগের সঙ্গে ড্রেসিংরুমে খেলোয়াড়দের দিয়েছেন দারুন উৎসাহ। ফাইনালে হারের পর মডরিচ-রাকিতিচদের সঙ্গে দুঃখ ভাগাভাগির দৃশ্য নজর কেড়েছে সবার। ভিডিও দেখতে নিচের লিংকে ক্লিক করুন।

বিশ্বকাপ শেষে বান্ধবীদের নিয়ে দেহ-মন চাঙ্গা করতে সময় কাটাচ্ছেন মেসি, রোনালদো ও নেইমাররা।

বিশ্বকাপ শেষে বান্ধবীদের নিয়েই মন চাঙ্গা করতে সময় কাটাচ্ছেন মেসি, রোনালদো ও নেইমাররা

Posted by Mohona tv on Saturday, 21 July 2018

 

Recommend to friends
  • gplus
  • pinterest

About the Author

Leave a comment