নিয়োগ বাণিজ্যের অভিযোগে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের  দুই শিক্ষককে এবার প্রশাসনিক পদ থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে। সোমবার সন্ধ্যায় বিশ্ববিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত রেজিস্ট্রার এস এম আব্দুল লতিফ স্বাক্ষরিত পৃথক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়। গত ১২ জুলাই বিশ্ববিদ্যালয়ের ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগের নিয়োগ পরীক্ষা হয়। ইংরেজি বিভগের অধ্যাপক ড. শাহাদাৎ হোসাইন আজাদ ও বাংলা বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. বাকি বিল্লাহ বিকুলের নিয়োগ বাণিজ্য সম্পর্কিত চারটি অডিও ফাঁস হয়। এতে শোনা যায়, ফারজানা ও তার স্বামী শাহরিয়ার আল মামুনের সঙ্গে ওই দুই শিক্ষকের ইতিহাস বিভাগে নিয়োগের বিনিময়ে ২০ লাখ টাকার চুক্তি হয়।

Recommend to friends
  • gplus
  • pinterest

About the Author

Leave a comment