অনিবন্ধিত সিএনজি চালিত অটোরিক্সার দৌরাত্বে অতিষ্ট চাঁদপুরের মানুষ। বেশিরভাগ চালকেরই নেই ড্রাইভিং লাইসেন্স। ফলে প্রায়ই ঘটছে দুর্ঘটনা। স্থানীয়দের অভিযোগ, ট্রাফিক পুলিশকে ঘুষ দিয়ে পার পেয়ে যান অবৈধ অটোরিক্সার মালিক ও চালকরা।

চাঁদপুরে চলাচল করছে প্রায় আট হাজার অনিবন্ধিত সিএনজি চালিত অটোরিক্সা। নিবন্ধন রয়েছে  ৬ হাজার ৭শ’টির। ড্রাইভিং লাইসেন্স রয়েছে এক হাজারেরও কম চালকের। আবার একই নম্বর ব্যবহার করা হচ্ছে একাধিক অটোরিক্সার।

স্থানীয়দের অভিযোগ, ট্রাফিক পুলিশকে ৩শ থেকে ১হাজার টাকা মাসোহারা দিয়ে পার পেয়ে যান অপ্রাপ্তবয়স্ক ও ড্রাইভিং লাইসেন্স বিহীন চালকরা। ফলে প্রায়ই ঘটছে ছোট-বড় দুর্ঘটনা।

চালকরা লাইসেন্স করতে আগ্রহী নয় বলে জানায় চাঁদপুর বিআরটিএ কর্তৃপক্ষ।আর চালকদের দাবি, লাইসেন্স করতে নানা হয়রানির শিকার হতে হয় তাদের।

আর সুনির্দিষ্ট অভিযোগ পেলে ব্যবস্থা নেয়ার আশ্বাস দিয়েছেন পুলিশ সুপার। চালকদের অনিহা আর প্রশাসনের উদাসীনতায় কোটি টাকা রাজস্ব থেকে বঞ্চিত হচ্ছে সরকার।

Recommend to friends
  • gplus
  • pinterest

About the Author

Leave a comment