শিরোপা লড়াইয়ে বাকি সেমিফাইনাল আর ফাইনাল। এর আগেই গ্রেটেস্ট শো অন আর্থ থেকে ছিটকে গেছে ফুটবল বিশ্বের তিন আলোকিত নাম জার্মানি, আর্জেন্টিনা ও ব্রাজিল। এই তিন দলের বিদায়ের গল্প লেখা হয়েছে একটি ভেন্যুতেই। কাজান অ্যারেনা, ইতোমধ্যে যার নাম হয়েছে অপয়া ভেন্যু নামে।

রাশিয়ার সবচেয়ে ঠান্ডা শহর বলে পরিচিত কাজান। এই ঠান্ডাতেই যেন উত্তাপ হারায় গ্রেটেস্ট শো অন আর্থের ২১তম আসর। কাজান অ্যারেনাতেই বিদায়ের ঘন্টা বাঁজে ফুটবল বিশ্বের তিন পরাশক্তি জার্মানি, আর্জেন্টিনা ও ব্রাজিলের। অনেকের কাছে এই ভেন্যু তাই পরিচিতি পেয়েছে মৃত্যুকূপ কিংবা অপয়া ভেন্যু হিসেবে।

২০১৩ সালে নির্মিত কাজান অ্যারেনা স্টেডিয়ামে গ্রুপ পর্বে অস্ট্রেলিয়াকে ২-১ গোলে ফ্রান্স আর ইরানকে ১-০ গোলে হারায় স্পেন। দু’টি ম্যাচেই সাবেক চ্যাম্পিয়নদের জয় কষ্টসাধ্য হলেও, অন্তত কোন ট্রাজেডি রচনা করেনি কাজান অ্যারেনা।

গ্রুপ পর্বে মেক্সিকোর কাছে হারলেও, পরের ম্যাচেই সুইডেনকে হারিয়ে দ্বিতীয় রাউন্ডে স্বপ্ন বুনতে থাকে গেল আসরের শিরোপাজয়ী জার্মানি। কিন্তু অপয়া ভেন্যুতে পরিণত হওয়া কাজানে রচিত হলো বিদায়ের আরেক গল্প। দক্ষিণ কোরিয়ার কাছে ২-০ গোলে হেরে ৮০ বছরের ঐতিহ্য ভাঙে জার্মানরা।

নকআউট পর্বের প্রথম ম্যাচে ফ্রান্সের কাছে ৪-৩ গোলে পরাজিত হয় ধুকতে ধুকতে গ্রুপ পাড়ি দেয়া আর্জেন্টিনা। ৪৫ হাজার ৩শ’ দর্শকের সামনে অশ্রুসিক্ত চোখে বিদায় নেন মেসি, অ্যাগুয়েরা, দিবালা, মারিয়ার মতো তারকা খেলোয়াড়রা।

জার্মানি, আর্জেন্টিনার পর, আরেক জায়ান্টের বিদায় ঘণ্টা বাজে এই কাজান অ্যারেনায়। বেলজিয়ামের কাছে ২-১ গোলে হেরে স্বপ্নভঙ্গ হয় বিশ্বকাপের সবচেয়ে সফল দল পেন্টাজয়ী ব্রাজিলের। অপয়া কাজান অ্যারেনার অভিশাপে ২০০৬ সালের পর এই প্রথম বিশ্বআসরের সেমিফাইনাল হচ্ছে কোন লাতিন পরাশক্তি ছাড়া।

 

 

Recommend to friends
  • gplus
  • pinterest

About the Author

Leave a comment