রাজধানী কাফরুলে নিজ নির্বাচনী এলাকায় অসংখ্য মসজিদ গড়ে তুলেছেন সংসদ সদস্য আলহাজ্ব কামাল আহমেদ মজুমদার। এরই মধ্যে কাফরুল পরিচিতি পেয়েছে মসজিদের জনপদ হিসেবে। শুধু মসজিদ নয়, অন্য ধর্মাবলম্বীদের প্রার্থনালয় নির্মাণেও রয়েছে তার সার্বিক সহায়তা। ধর্মানুরাগী হিসেবে খ্যাতি পাওয়া কামাল মজুমদারকে তাই আগামীতেও সংসদ সদস্য হিসেবে দেখতে চান এখানকার মানুষ।

বাতাসে ভেসে আসছে আজানের সুমধুর সুর। এই সুর বলে দেয় কাফরুলের অলিগলিতে ছড়িয়ে আছে অসংখ্য মসজিদ। এসব মসজিদের অবকাঠামো উন্নয়নে যার সবচেয়ে বেশি অবদান তিনি সংসদ সদস্য আলহাজ্ব কামাল আহমেদ মজুমদার।

ধর্মপ্রাণ মুসলিমদের ইবাদতের সুবিধার্থে গড়ে তোলা হয়েছে মিরপুর ১৪ নম্বর কলোনী কেন্দ্রীয় জামে মসজিদ ও জামেউল উলুম মাদ্রাসা কমপ্লেক্স। গাড়ি পাকিং থেকে শুরু করে নামাজ আদায়ে যতপ্রকার সুবিধা থাকা প্রয়োজন সবই আছে এখানে।

মসজিদের পাশেই নির্মিত হয়েছে সুবিশাল পার্ক। যেখানে দিনভর মুক্ত হাওয়ার স্বাদ নেন স্থানীয়রা। ঈদের নামাজ আদায়ের জন্য রয়েছে কামাল আহমেদ মজুমদার ঈদগাহ মাঠ। মৃতদের গোসলের জন্য রয়েছে আলাদা ব্যবস্থা।

কামাল মজুমদারের আর্থিক সহায়তা ও ব্যক্তিগত উদ্যোগে চলছে বায়তুর রহমান জামে মসজিদের অবকাঠামো উন্নয়নকাজ। আধুনিক ও শৈল্পিক কারুকাজে সাজানো হচ্ছে বহুতল ভবনটি। ওদিকে, সম্প্রসারিত জায়গায় গড়ে তোলা হচ্ছে বায়তুর রেজা নামে আরেকটি জামে মসজিদ।

দেশের অত্যাধুনিক মসজিদগুলোর মধ্যে ঠাঁই করে নিয়েছে ১৩ নম্বর কেন্দ্রীয় জামে মসজিদ ও দারুল উলুম মাদ্রাসা কমপ্লেক্স। পীরেরবাগ ঝিলপাড় জামে মসজিদের উন্নয়নে অর্থায়নসহ সব ধরনের সহায়তা করছেন কামাল আহমেদ মজুমদার।

দক্ষিণ পিরেরবাগে রাহাতুন নেছা জামে মসজিদের আধুনিকায়নেও তার অবদান সর্বজনবিদিত।  শুধু মসজিদ মাদ্রাসা নয়, সুষ্ঠুভাবে উপাসনা করতে অন্য ধর্মাবলম্বীদেরও সার্বিক সহায়তা দিয়ে আসছেন ১৫ আসনের এই সংসদ সদস্য । মন্দির, প্যাগোডা ও গির্জার উন্নয়নেও কামাল মজুমদারের অবদানের কথা তুলে ধরেন সংশ্লিষ্টরা।

সব ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানে সহায়তার জন্য কামাল আহমেদ মজুমদারকে কৃতজ্ঞতা জানিয়ে আগামীতেও তার সাহায্য সহযোগিতা থাকবে বলে আশা জানান স্থানীয়রা।

 

 

Recommend to friends
  • gplus
  • pinterest

About the Author

Leave a comment