২০১৮-১৯ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেট পাস হলে, জনগণের জীবন মানের উন্নয়ন হবে বলে মনে করছেন সাধারণ মানুষ। বিশেষ করে শিশু খাদ্য,  অষুধ, বেকারী খাদ্য, গো খাদ্য এবং দেশীয় সব ধরনের পণ্যের দাম কমার কথা আছে। এতে অনেক সাশ্রয়ি হবে বলেও মনে করছেন জনগন।

প্রস্তাবিত বাজেটে বান ও পাউরুটিসহ বেকারি পণ্য, হাতে তৈরি বিস্কুটের দাম কমানোর কথঅ বলা হয়েছে।  গুঁড়ো দুধ এবং শিশু খাদ্যের দাম কমানোর প্রস্তাবে খুশী গৃহিনীরা। দেশী পণ্যের দাম কমলে ব্যবসায়ী এবং ভোক্তা উভয়েই উপকৃত হবেন। মোটরসাইকেলের যন্ত্রাংশ আমদানিতেও রেয়াতি সুবিধার কথা বলা হয়েছে।

ওষুধশিল্পের কাঁচামাল আমদানিতে শুল্ক কমানোর প্রস্তাবকে গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত বলে মনে করছেন অনেকেই। এছাড়া পোলট্রি শিল্পের প্রয়োজনীয় উপকরণ, কর্নফ্লাওয়ার, অ্যালুমিনিয়ামের তার আমদানিতে শুল্ক কমানো হয়েছে। যা সবার জীবনযাত্রাকে আরো স্বচ্ছল করে তুলবে বলে মনে করেন সাধারণ মানুষ।

 

 

 

Recommend to friends
  • gplus
  • pinterest

About the Author

Leave a comment