মারাত্মক স্বাস্থ্যঝুঁকিতে রাজধানীর পরিচ্ছন্নতা কর্মীরা। রাস্তায় ঝাড়ু দেয়াসহ বর্জ্য অপসারণ করতে গিয়ে অ্যাজমা, পেটের পীড়া, চর্মরোগসহ নানা রোগে আক্রান্ত হচ্ছেন তারা। বিষয়টি স্বীকার করে পরিচ্ছন্নতাকর্মীদের জীবনমান উন্নয়নে কাজ চলছে বলে জানিয়েছে সিটি কর্পোরেশন কর্তৃপক্ষ।

আবর্জনা দেখে নাক সিঁটকান না এমন মানুষ কমই আছেন। অথচ দুর্গন্ধময় সেই আবর্জনা অবলীলায় পরিস্কার করে চলেছেন পরিচ্ছন্নতা কর্মীরা। কাকভোর থেকে শুরু করে গভীর রাত পর্যন্ত ডাস্টবিনের আর্বজনা সংগ্রহ করে চলেছেন তারা। অবাক হলেও সত্যি, শহর পরিচ্ছন্ন রাখার দয়িত্ব পালন করা এসব মানুষ নিজেরাই অপরিচ্ছন্ন।

ঢাকা দুই সিটির অধীনে কাজ করছেন প্রায় সাড়ে ৭ হাজার নিবন্ধিত পরিচ্ছন্নতা কর্মী। বর্জ্য অপসারণের কাজ করতে গিয়ে প্রতিনিয়ত নানা রোগে আক্রান্ত হচ্ছেন তারা। তবে সিটি কর্পোরশন থেকে তাদের চিকিৎসার কোন ব্যবস্থা রাখা হয়নি।

গত এক যুগে রাজধানীতে কাজ করার সময় মারা গেছেন ৮১৪ জন পরিচ্ছন্নতা কর্মী। এদের মধ্যে অ্যাজমায় ২৭ শতাংশ, ক্যান্সারে ২২, হৃদরোগে ১৮, স্ট্রোক করে মারা গেছেন ৭ শতাংশ কর্মী। আর বার্ধক্য ও দুর্ঘটনাজনিত কারণে মারা গেছেন ২৬ শতাংশ কর্মী। অনিবন্ধিত প্রায় সাড়ে ৪ হাজার কর্মীর বিষয়ে কোন তথ্য নেই কর্তৃপক্ষের কাছে।

বিষয়টি স্বীকার করে পরিচ্ছন্নতা কর্মীদের স্বাস্থ্যরক্ষায় কাজ চলছে বলে দাবি সিটি কর্তৃপক্ষের। তবে এসব পরিকল্পনা কবে বাস্তবায়ন হবে অথবা আদৌ হবে কি-না, তা বলতে পারেননি এই কর্মকর্তা।

 

 

Recommend to friends
  • gplus
  • pinterest

About the Author

Leave a comment