জলাধার সংরক্ষণ আইনকে বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখিয়ে রাজধানীর পল্লবীর বাউনিয়া খালের প্রায় সবটুকুই দখল হয়ে গেছে। দখলদাররা বলছেন, সরকার চাইলে খালের জায়গা ছেড়ে দেয়া হবে। আর সংরক্ষণে দায়িত্বপ্রাপ্ত সংস্থাগুলোর অবহেলাকে দায়ি করেলেন জনস্বার্থে রিটকারী আইনজীবী অ্যাডভোকেট মনজিল মোরশেদ।

জলাধার সংরক্ষণ সংশোধিত আইনে জলাশয় বন্ধ করে স্থাপনা নির্মাণের শাস্তি জেল-জরিমানা বা উভয় দণ্ড। কিন্তু আইনের তোয়াক্কা করছেনা দখলদাররা। পল্লবীর মদিনা নগর এলকায় প্রভাবশালীদের ছত্রছায়ায় খালের মধ্যেই গড়ে উঠছে অনেক অট্টালিকা।

এমন দখলবাজির কারণে পানি নিস্কাশন ব্যবস্থা ব্যাহত হচ্ছে। ফলে সামান্য বৃষ্টিতেই তলিয়ে যায় পুরো এলাকা।

পলাশ নগর, সবুজ বাংলা এলাকার দখলদাররা বলছেন, দখল উচ্ছেদে সরকারের সিদ্ধান্ত মেনে নেবেন তারা।

সরকারের সিদ্ধান্তই যদি মানা হবে তবে খাল ভরাট করা হলো কেন? সিনিয়র এ আইনজীবীর মতে আইনের যথাযথ প্রয়োগ না হওয়ায় এ সুযোগটা কাজে লাগাচ্ছে দখলবাজরা।

 

Recommend to friends
  • gplus
  • pinterest

About the Author

Leave a comment