দক্ষিণ কোরিয়ার সঙ্গে মিলিয়ে দুই দেশের একই সময় করে করলো উত্তর কোরিয়া। গত সপ্তাহে দুই কোরিয়ার মধ্যে আলোচনার পর উত্তর কোরিয়ার পক্ষ থেকে নেওয়া ‘প্রথম’ এই পদক্ষেপকে শান্তিপূর্ণ কর্মসূচির অংশ হিসেবেই দেখছেন বিশেষজ্ঞরা।

স্থানীয় সংবাদ সংস্থা কেসিএনএ জানিয়েছে, শুক্রবার (০৪ মে) দিনগত রাত সাড়ে ১১টার সময় ঘড়ির কাঁটা ৩০ মিনিট এগিয়ে দেওয়া হয়।

এদিকে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প জানিয়েছেন, উত্তরের নেতা কিমের সঙ্গে আগামী সপ্তাহে বৈঠক রয়েছে। বৈঠকে ‘খুব ভালো’ কিছু নিয়ে আলোচনা হবে। কবে, কোথায় বৈঠকটি অনুষ্ঠিত হবে তা শিগগিরই জানিয়ে দেওয়া হবে।

পুরোপুরি পরমাণু নিরস্ত্রীকরণের মাধ্যমে পরমাণুমুক্ত কোরিয়া উপদ্বীপ গড়ে তোলার অভিন্ন লক্ষ্য অর্জনে উত্তর ও দক্ষিণ কোরিয়া দৃঢ়ভাবে একমত। কোরীয় উপদ্বীপে আর কখনও যুদ্ধ হবে না। আর এখান থেকেই শান্তির নবযুগের সূচনা হলো।

যৌথ ঘোষণায় জানানো হয়, আগামী মে মাসেই পিয়ংইয়ং ও সিউলের শীর্ষ পর্যায়ের সামরিক সংলাপ হবে। পূর্ণমাত্রায় চুক্তিকে এগিয়ে নিতে যুক্তরাষ্ট্র ও চীনকে নিয়ে বহুপাক্ষিক সংলাপও করবে উত্তর ও দক্ষিণ কোরিয়া।

 

Recommend to friends
  • gplus
  • pinterest

About the Author

Leave a comment