খুলনা নগরীর নিন্ম আয়ের বস্তিবাসীর কদর বেড়েছে। আর এই সমাদর বিগত খুলনা সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনের মত প্রার্থীদের এই সকল ভোটারদের সমর্থন আদায়ের জন্য। সারা বছর নাগরিক সেবা বঞ্চিত থাকতে হয়েছে এই সকল নিম্ম আয়ের মানুষকে। কিন্ত নির্বাচনকে সামনে রেখে বস্তি উন্নয়নে আসছে নানা প্রতিশ্রুতি।সিটি কপোরেশন নির্বাচনে প্রার্থীদের টার্গেট এখন মহানগরী৩’শর বেশী বস্তির বাসিন্দারা।শুধুমাত্র প্রতিশ্রুতি নয়, প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়নে যোগ্য প্রার্থীকেই নির্বাচিত করতে চায় এসব সুবিধা বঞ্চিত মানুষেরা।

আগামী ১৫ মে পঞ্চমবারের মত অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে খুলনা সিটি কপোরেশন নির্বাচন। নির্বাচনকে সামনে রেখে প্রার্থীরা ছুটছেন নিম্ম আয়ের মানুষের কাছে। নগর ও নগরবাসীর উন্নয়নের নানা প্রতিশ্রুতি নিয়ে কর্মী-সমর্থকদের নিয়ে রাতদিনই ব্যস্ত প্রার্থীরা। কিন্তু নগরীর অবিচ্ছেদ্দ অংশ স্বল্প আয়ের মানুষ, যাদের নাগরিক সুবিধার খুব একটা পরিবর্তন ঘটে না কোন সময়েই।

নাগরিক অধিকার থেকেও বছরের পর বছর বঞ্চিত তারা। খুলনা সিটি কর্পোরেশনের  ৩শ’র বেশী বস্তির চিত্র একই। প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়নে যোগ্য প্রার্থীকেই নির্বাচিত করতে চান সুবিধা বঞ্চিত এসব মানুষ।

এসব মানুষ যার পক্ষে রায় দেবেন সেই হাসবেন শেষ হাসি, সে বিবেচনায় গুরুত্বের সঙ্গে প্রচারনা চালাচ্ছেন মেয়র প্রার্থীরা। নিম্ম আয়ের এসব মানুষদের প্রভাব বিস্তার ও প্রলোভন দেখিয়ে কাছে টানতে চায় প্রার্থরীরা, এমন অভিযোগ করলেন নাগরিক নেতারা।

সিটি কর্পোরেশনের তথ্যে খুলনা নগরীর ২০ শতাংশ ভোটারের বসবাস বস্তিতে। সারা বছরই রাগরিক সুবিধা বঞ্চিত থাকলেও নির্বাচন এলে তাদের কদর বেড়ে যায়।

Recommend to friends
  • gplus
  • pinterest

About the Author

Leave a comment