দুই মাস সরকারি নিষেধাজ্ঞা শেষে ইলিশ শিকারে নদীতে নেমেছেন জেলেরা। মঙ্গলবার মধ্যরাত থেকে আবারও জাল-জেলে ভরে উঠেছে পদ্মা-মেঘনা ও তেঁতুলিয়ার বুক। দীর্ঘদিনের কর্মহীন সময় আর দুঃখকষ্ট ভুলে রূপালী ইলিশে নতুন স্বপ্ন দেখছেন মৎস্যজীবীরা। আর মৎস্য বিভাগ নিষেধাজ্ঞা সফল দাবি করে মাছ উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা ছাড়িয়ে যাওয়ার আশা করছে।

ইলিশের উৎপাদন বৃদ্ধি ও জাটকা রক্ষায় দুই মাসের নিষেধাজ্ঞা শেষ হয়েছে মঙ্গলবার মধ্যরাতে। বিগত বছরের মতো এবারও ১ মার্চ থেকে ৩০ এপ্রিল পর্যন্ত দেশের ২৫ জেলার ১৩৬টি উপজেলায় বিভিন্ন নদীতে সব ধরনের মাছ ধরায় নিষেধাজ্ঞা ছিলো। নিষেধাজ্ঞা শেষ হবার পর কর্মহীন জেলেরা নতুন উদ্যমে জাল-নৌকা নিয়ে নেমেছেন ইলিশ শিকারে।

জেলে ও ব্যবসায়ীদের সরব উপস্থিতিতে পুরনো রূপে ফিরতে শুরু করেছে মাছ ঘাটগুলো। অভিযান সফল হয়েছে দাবি করে চলতি মৌসুমে বড় আকারের ইলিশ ও বেশি মাছ পাওয়ার আশা করছেন জেলেরা।

মৎস্য বিভাগও বলছে, সরকারি নিষেধাজ্ঞা সফল হওয়ায় মাছের উৎপাদন এবার বাড়বে। ২০১৭ সালে পাঁচ লাখ মেট্রিকটন ইলিশ উৎপাদিত হয়েছে। এবার উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছে সাড়ে পাঁচ লাখ মেট্রিকটন। ২০১৬ সালে ইলিশ মিলেছে চার লাখ মেট্রিকটন।

 

Recommend to friends
  • gplus
  • pinterest

About the Author

Leave a comment