মো. আব্দুল হামিদ। দ্বিতীয় মেয়াদে আবারও বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন দেশের ২১তম রাষ্ট্রপতি হিসেবে। ১৯৭১ সালের স্বাধীনতা যুদ্ধে উল্লেখযোগ্য অবদান রাখায় তাঁকে ২০১৩ সালে স্বাধীনতা পদকে ভূষিত করা হয়। তাঁর রয়েছে বর্ণাঢ্য রাজনৈতিক জীবন।

মো. আব্দুল হামিদের জন্ম ১৯৪৪ সালের পয়লা জানুয়ারী, কিশোরগঞ্জের মিঠামইন উপজেলার কামালপুর গ্রামে। বাবা হাজী মো. তায়েব উদ্দীন, মা তমিজা খাতুন। নিজ জেলার স্কুল ও কলেজ থেকে মাধ্যমিক, উচ্চ মাধ্যমিক ও স্নাতক ডিগ্রী অর্জন করেন। পরে ঢাকা সেন্ট্রাল ল কলেজ থেকে এলএলবি ডিগ্রী অর্জন করে আইন পেশায় যুক্ত হন।

আব্দুল হামিদের রাজনৈতিক জীবন শুরু হয় তৎকালীন ছাত্রলীগে যোগদানের মাধ্যমে। কলেজে পড়ার সময়ই আইয়ুববিরোধী আন্দোলনে যোগ দেন ১৯৬১ সালে। এসময় কারারুদ্ধও হন তিনি। একাত্তরে অংশ নেন মহান মুক্তিযুদ্ধে। এজন্য পেয়েছেন স্বাধীনতা পদকও।

১৯৭৫ সালে বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ডে রাজনৈতিক পট পরিবর্তনের পর কারারুদ্ধ হন তিনি। বঙ্গবন্ধুর আদর্শকে বুকে ধারণ করে আজীবন নিমগ্ন রয়েছেন দেশের সেবায়। পালন করেছেন জাতীয় সংসদে স্পিকার, ডেপুটি স্পিকার ও বিরোধী দলীয়  উপনেতার দায়িত্ব। রাষ্ট্রের উঁচু পদে আসীন থেকেও যাপন করেন অত্যন্ত সাধারণ জীবন।

 

Recommend to friends
  • gplus
  • pinterest

About the Author

Leave a comment